পশ্চিমবঙ্গের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ পিএম মোদীর

বছরের প্রথম দিনই সাক্ষাত্কারে পশ্চিবঙ্গের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি কর্মীদের ওপর রাজনৈতিক আক্রমণের নিন্দা করেন প্রধানমন্ত্রী। একই সঙ্গে উদ্বেগ প্রকাশ করেন কেরল ও কর্ণাটকে রাজনৈতিক হিংসার প্রবণতা নিয়েও।

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা ঘটছে। বিশেষ করে কেরল, কর্ণাটক ও পশ্চিমবঙ্গে। পশ্চিমবঙ্গে আমাদের দলকে গণতান্ত্রিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। গণতান্ত্রিক কর্মসূচির জন্য আমাদের আদালতে যেতে হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কেরলে রোজ বিজেপি কর্মীরা খুন হচ্ছেন। কর্ণাটকেও তাঁদের আক্রান্ত হতে হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গেও নৃশংসভাবে বিজেপি কর্মীদের মারা হচ্ছে। গণতন্ত্রে এসব মানায় না।

আরও পড়ুনঃ ২০১৯-এ জনতাই জবাব দেবে, মোদীকে পাল্টা জবাব পার্থ

পশ্চিমবঙ্গের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ পিএম মোদীর

এদিন মোদী বলেন, যে দলেরই কর্মী আক্রান্ত হোন না কেন, হিংসা বন্ধ হওয়া উচিত। এই ধরণের রাজনীতি ভারতের গণতান্ত্রিক ভবিষ্যতের জন্য ক্ষতিকর। সমস্ত রাজনৈতিক দলের এই নিয়ে ভাবা উচিত। ভারতীয় জনতা পার্টি ও সরকার এসব সহ্য করবে না। সবাইকে ন্যায় মিলবে। ভারতে হিংসার জায়গা নেই।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, এদিন নাম না-করে বিজেপির রথযাত্রা কর্মসূচির কথাই বলতে চেয়েছেন তিনি। পশ্চিবমঙ্গে বিজেপিকে রথযাত্রার অনুমতি দেয়নি তৃণমূল সরকার। আদালতের সিঙ্গল বেঞ্চ থেকে রথযাত্রার অনুমতি মিললেও মামলা এখন আটকে সুপ্রিম কোর্টে।

Source
Zee News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker