পালস লজেন্স খেতে ভালবাসেন ? বাজারে ছেয়ে গিয়েছে নকল পালস লজেন্স

ইদানীংকালে এমন জনপ্রিয়তা পেতে দেখা যায়নি কোনও লজেন্সকে। বাচ্চা থেকে বুড়ো সবার পছন্দের লজেন্স পালস। এবার তার নকলও মিলল।

লজেন্স কার না ভালো লাগে ? সেই ছোটবেলা থেকেই বিভিন্ন লজেন্স খেয়ে বড় হয়েছি আমরা সকলেই। কখনও ট্রেনে, কখনও বা বাসে। বাবা দাদুর কাছে আবদার করলেই তারা কিনে দিত লাল লজেন্স, কালো লজেন্স, ঝাল লজেন্স ইত্যাদি।

ইতিমধ্যেই ভারতবর্ষে বিশাল পপুলার হয়েছে পালস নামক লজেন্সটি। এই লজেন্সের অদ্ভুত টক-ঝাল স্বাদ এটিকে আরও জনপ্রিয় করে তুলেছে।
পাস পাস কোম্পানির এই একটাকা দামের লজেন্সটি আজ সবারই প্রিয়। টিভি থেকে শুরু করে বড় বড় হোরডিং-এ শুধুই পালস লজেন্সের প্রচার। এই প্রচারের জন্যই আজ পালস ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় চকলেট। বর্তমানে প্রায় দু-তিন রকম ফ্লেভারে পাওয়া যায় এই লজেন্সটি।

পালস লজেন্স খেতে ভালবাসেন বাজারে ছেয়ে গিয়েছে নকল পালস লজেন্স

পালস লজেন্সের জনপ্রিয়তার কারনে আজ বিদেশেও রপ্তানি করা হচ্ছে এই লজেন্স। আশা করা যায় কয়েকবছরের মধ্যেই এই লজেন্সের কোম্পানি ভারতের অন্যতম কোম্পানিগুলির একটি হয়ে উঠবে।

আরও পনড়ুঃ খুব সহজেই ঘরে বসে বসে ওজন কমান

বাজারে আসার মাত্র ৮ মাসের মধ্যেই ১০০ কোটি টাকার ব্যবসা করে ফেলে ‘পালস’ লজেন্স। কোকা কোলার ডায়েট ড্রিঙ্ক ‘‘কোক জিরো’’-র রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলে। মাত্র এক টাকায় নতুন মাজা নিয়ে আসে ‘পালস’। আম এবং পেয়ারার স্বাদের দু’টি লজেন্সই কমবেশি বাজার পায়। কাঁচা আম কিংবা ডাসা পেয়ারা স্বাদের ক্যান্ডির ভিতরে নোনতা স্বাদ।

পালস লজেন্স খেতে ভালবাসেন বাজারে ছেয়ে গিয়েছে নকল পালস লজেন্স
Pulse লেখাটি আসল লজেন্স এবং Pluse লেখাটি নকল লজেন্স

এবার বাজারে এসে গেলে একেবারে একই রকম মোড়কের লজেন্স। রং এক। মোড়ের ডিজাইনও এক। ফারাক শুধু বানানে। আসলটিতে PULSE লেখা আর নকলটিতে PLUSE লেখা। কেনার সময়ে সতর্ক থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker